ঢাকা বুধবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৯

শ্রীলঙ্কার জয়ী হওয়ায় বাড়ল বাংলাদেশের আশা


|| প্রকাশিত: 2:15 am , June 22, 2019

বিশ্বকাপে দুর্দান্ত এক জয় তুলে নিল শ্রীলঙ্কা। শুক্রবার স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে হারিয়ে দিয়েছে ১৯৯৬ এর চ্যাম্পিয়নরা। লঙ্কান সিংহদের এই জয়ে বাড়ল বাংলাদেশের সেমিফাইনাল খেলার আশা।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দারুণ লড়াই করেও বৃহস্পতিবার হার মানতে হয় বাংলাদেশকে। যে হারে সেমিফাইনাল খেলার সমীকরণ কঠিন হয়ে গেছে টাইগারদের জন্য। নিজেদের বাকি তিন ম্যাচের তিনটিতেই এখন জিততে হবে বাংলাদেশকে। একই সঙ্গে তাকিয়ে থাকতে হবে অন্যদিকের দিকেও।

শ্রীলঙ্কা-ইংল্যান্ড ম্যাচেও তাই চোখ ছিল সবার। লঙ্কানরা ম্যাচ জিতে যাওয়ায় বাংলাদেশ এখন কিছুটা আশাবাদী হতেই পারে।

ইংল্যান্ড-শ্রীলঙ্কা ম্যাচের পর পয়েন্ট টেবিলের দিকে তাকানো যাক। ৬ ম্যাচে ৫ জয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে অস্ট্রেলিয়া। সমান ম্যাচে ৪ জয়ে ইংল্যান্ডের পয়েন্ট ৮। তারা আছে তৃতীয় স্থানে। ৫ ম্যাচে ৪ জয় ও পরিত্যক্ত হওয়া ম্যাচ থেকে একটি পয়েন্ট পেয়ে মোট ৯ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে নিউজিল্যান্ড। ৪ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে ভারত আছে চতুর্থ স্থানে।

টেবিলে পরের দুটি স্থান অর্থাৎ পঞ্চম ও ষষ্ঠ স্থানে আছে যথাক্রমে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ। ৬ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার পয়েন্ট ৬। সমান ম্যাচে বাংলাদেশের ৫।

বাংলাদেশ পরের ম্যাচগুলো খেলবে আফগানিস্তান, ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে। ম্যাচগুলো জিতলে টাইগারদের পয়েন্ট দাঁড়াবে ১১। অস্ট্রেলিয়ার এরই মধ্যে ১০ পয়েন্ট। নিউজিল্যান্ডের ৯ পয়েন্ট। তারা অনেকটা সেমিফাইনালের পথে এগিয়ে বলতে হবে।

তবে ইংল্যান্ড নিজেদের বাকি তিন ম্যাচের দুটি হারলেই সেমির পথ স্বপ্ন বিলীন হতে পারে তাদের। দলটির শেষ তিন ম্যাচ অস্ট্রেলিয়া, ভারত ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। সেই সম্ভাবনা তাই উড়িয়ে দেওয়া যায় না।

তবে বাংলাদেশকে এখন পরের তিন ম্যাচে জয় ছাড়া অন্য কিছু ভাবার সুযোগ নেই। সঙ্গে প্রার্থনা করতে হবে অন্য দলগুলোর পরাজয়ের। বিশেষ করে সব ম্যাচে ইংল্যান্ডের হার চাইবে দর্শকেরা।

এদিন ইংল্যান্ড জিতে গেলে অস্ট্রেলিয়ার সমান ১০ পয়েন্ট হতো দলটির। সেটি হলে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে সেমিফাইনাল সমীকরণ সহজ হয়ে যেতো তাদের জন্য। কিন্তু সেটি না হওয়াতেই বাংলাদেশের জন্য বাড়ছে আশা। একই রকম আশা থাকছে শ্রীলঙ্কার জন্যও।

টাইগাররা সোমবার সাউদাম্পটনে আফগানিস্তানের বিপক্ষে লড়বে।