ঢাকা শনিবার, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯

ফখরুলসহ চার নেতাকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ


|| প্রকাশিত: 7:02 pm , August 6, 2019

শেখ হাসিনাকে খুনের হুমকি দেওয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে ছয় সপ্তাহের মধ্যে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে এই ছয় সপ্তাহ তাদেরকে গ্রেপ্তার ও হয়রানি না করারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেনের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

সকালে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এই মামলায় আগাম জামিন আবেদন করেন তারা।

সোমবার বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ নয় জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে আদালত। ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদার বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, আমান উল্লাহ আমান, বুয়েটের বহিষ্কৃত শিক্ষক হাফিজুর রহমান রানা ও ছাত্রদল নেতা এমদাদুল হক ভূঁইয়া।

বিএনপি নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা করায় মেরে ফেলার হুমকির অভিযোগে দণ্ডবিধির ১০৯, ৫০৬ ধারায় মামলাটি দায়ের করেন বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এবি সিদ্দিকী।

মামলায় বলা হয়, গত ২৩ জুলাই আমার বাসায় একটি রেজিস্ট্রি চিঠি পাঠান বুয়েটের শিক্ষক হাফিজুর রহমান রানা। চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, ‘এ বি সিদ্দিকী মামলাবাজ। তোর মামলায় আমার জীবন নষ্ট হয়েছে। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে জেলখানায় বন্দি রেখে মেরে ফেলার পরিকল্পনা করছিস। আইএসের কাছে বার্তা পাঠিয়েছি। এবার তুমি মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত থাক। তারেক রহমান আমাদের নেতাদের নির্দেশ দিয়েছিল তোকে খুন করার জন্য।’ এ ঘটনায় পরদিন আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি।