ঢাকা শনিবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯

মায়ের পাশে কবর খুঁড়ে মৃত্যুর অপেক্ষায় গোপালগঞ্জের মঞ্জুর


|| প্রকাশিত: 4:54 pm , August 28, 2019

মঞ্জুর হাসানের ইচ্ছা মায়ের পাশে শেষ শয্যা পাতবেন। তাই কবর খুঁড়ে অপেক্ষা করছেন মৃত্যুর। ভারতের বিহার রাজ্যের পাটনার ঘটনা এটি।

স্থানীয় গোপালগঞ্জ জেলার বরুলি এলাকায় মঞ্জুরের বাড়ি। তিনি মায়ের কবরের পাশে নিজের শেষ ঠিকানা খুঁড়তে ২৫ হাজার রুপি খরচ করেছেন।

গালফ নিউজকে জানান, মৃত্যুর পর পরিবার এই ইচ্ছা পূরণ করবে কিনা তিনি নিশ্চিত নন। তাই নিজেই কবর খুঁড়ে রেখেছেন।

৭০ বছরের মঞ্জুর বলেন, “এই পৃথিবীর আমার যা করার ছিল করেছি। এখন আল্লাহর ডাকের জন্য আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছি।”

বর্তমানে শূন্য কবরটি দেখাশোনা ও সেখানে প্রার্থনা করে তিনি বেশির ভাগ সময় কাটান।

পেশায় কৃষক মঞ্জুর দাতব্য কাজের জন্য স্থানীয়দের প্রিয়পাত্র। নিজের টাকায় তিনি মাদ্রাসা, মসজিদ ও বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেছেন। তার মাদ্রাসায় দরিদ্র পরিবারের শিশুদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা রয়েছে।

মঞ্জুর জানান, মাকে তিনি খুবই ভালোবাসেন। তাই তার কাছাকাছি থাকার জন্য কবর খুঁড়েছেন। জীবদ্দশায় কখনো মাকে ঘরে একা রেখে কোথাও যাননি। এখন শেষ ইচ্ছা মৃত্যুর পরও মায়ের কাছে থাকা।

১৯৯৯ সালে মা মারা গেলে বাড়ির কাছেই তাকে কবর দেন মঞ্জুর হাসান। যেন সব সময় কবরটি দেখতে পান।

মঞ্জুরের এই আজব খেয়াল নিয়ে স্থানীয়দের মাঝে বেশ চর্চা হচ্ছে। অনেকে কবরটি দেখতেও আসছেন।

স্থানীয় বিদ্যালয়ের শিক্ষক এইচ আর হাসানের মতে, ঘটনাটি বেশ অদ্ভুত। সে সময় মানুষ আরও বেশি বাঁচতে চায়, ভালো চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্র পর্যন্ত পাড়ি জমায়- তখন মঞ্জুরের কবর খোঁড়া সবার জন্য গুরুত্বপূর্ণ বার্তা।

এই বিভাগের আরও খবর
সর্বশেষ