ঢাকা মঙ্গলবার, অক্টোবর ২২, ২০১৯

স্কুলে মোবাইল নিষিদ্ধ করা উচিত?


|| প্রকাশিত: 2:26 pm , September 2, 2019

স্কুলে শিক্ষার্থীদের মোবাইল ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া নিয়ে যুক্তরাজ্যে বেশ হইচই শুরু হয়েছে। অভিভাবকদের মধ্যে বড় একটা অংশ চাইছেন না এটি নিষিদ্ধ করতে। অনেক স্কুল আবার সেটি করেছে।

শিক্ষার্থীদের মোবাইল ব্যবহার নিয়ে বিশ্বের অধিকাংশ দেশ উদ্বিগ্ন। বাংলাদেশেও পরিস্থিতি একই রকম। কারণ দেশের মোবাইল ব্যবহারকারীদের মধ্যে সবচেয়ে বড় অংশ শিক্ষার্থী।

বাংলাদেশের মোবাইল ব্যবহারকারীদের প্রকৃত চিত্র জানতে ২০১৬ সালে একটি জরিপ চালায় বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো। সেখানে বলা হয়, দেশে ৫ বছরে ঊর্ধ্বে ১৫ বছরের নিচে ২ দশমিক ৪ ভাগ জনগোষ্ঠী কম্পিউটার ব্যবহার করে। এ বয়সী দেড় শতাংশ মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করে। অন্যদিকে তথ্য প্রযুক্তির বেশিরভাগ ব্যবহারকারীর বয়স ১৫ থেকে ২৪ বছরের মধ্যে। এ বয়সীদের সাড়ে ১০ শতাংশ কম্পিউটার, ১২ শতাংশ ইন্টারনেট, ৯০ দশমিক ৩ শতাংশ মোবাইল ব্যবহার করে। অন্যদিকে ২৫ থেকে ৭৪ বছর বয়সী ৫ দশমিক ৮ ভাগ কম্পিউটার, ৭ দশমিক ৭ ভাগ ইন্টারনেট এবং ৮৬ দশমিক ২ ভাগ মোবাইল ব্যবহার করছে।

ওই জরিপে বলা হয় মোবাইল বাজারে গ্রাহকদের মধ্যে ৯১.৪ শতাংশের বয়স ১৫ থেকে ২৪ বছরের মধ্যে। এই চিত্র এখন আরও বড় হয়েছে বলে মনে করা হয়।

প্রযুক্তিতে শক্তিশালী দেশ হিসেবে পরিচিতি যুক্তরাজ্যের ৪৯ শতাংশ অভিভাবক বলছেন, স্কুলে মোবাইল নিষিদ্ধ করা উচিত। তার মানে ৫১ শতাংশ চাইছেন, তাদের ছেলেমেয়েরা স্কুলে মোবাইল ব্যবহার করুক।

ওই ৫১ শতাংশের যুক্তি, মোবাইল নিষিদ্ধ হলে বাচ্চারা এর প্রতি বেশি ঝুঁকবে। পরিমিতভাবে ব্যবহার করার প্রবণতা কমে যাবে। নিয়মের ভেতর থেকে কীভাবে মোবাইলের মতো প্রযুক্তি ব্যবহার করতে হয়, সেটি অল্প বয়স থেকেই শেখা উচিত।

স্কুলে বাচ্চাদের নিরাপত্তার কথাও বলেছেন তারা।

অন্যরা বলছেন, স্কুলে মোবাইল ব্যবহার করতে দেওয়া মানে মনযোগের বিক্ষিপ্ত আচরণকে উৎসাহিত করা।

এই বিভাগের আরও খবর
সর্বশেষ