ঢাকা বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ২০, ২০২০

আবদুল রশিদের কবরে মাটি দিলেন হিন্দুরাও


|| প্রকাশিত: 2:22 pm , February 7, 2020

পিনিউজ২৪ ডেস্ক: ধর্মের ভেদরেখা অতিক্রম করে প্রতিবেশীকে চিরবিদায়! তা-ও আবার খোদ নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহদের দেশ ভারতে। যেখানে হিন্দু-মুসলিম বিভক্তিকে দেশটির ইতিহাসে সর্বোচ্চ পর্যায়ে নিয়ে গেছেন এ দুজন।

সম্প্রীতির এমন নজির স্থাপন করলেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মালদহের চাঁচলের অশ্বিনপুর গ্রামের বাসিন্দারা।

সংবাদ প্রতিদিন জানায়, বয়সের ভারে ন্যুব্জ আবদুল রশিদ। পেশায় রেশন ডিলার ছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার সকালেই মারা যান। তার মৃত্যুর খবরে ছুটে আসেন প্রতিবেশী হিন্দুরাও।

ধর্মীয় রীতি মেনে দাফন করা হয় আবদুর রশিদকে। এ সময় মুসলিমদের সঙ্গে মিলে তার কবরে মাটি দেন সেখানে উপস্থিত হওয়া হিন্দুরা।

বীরেন্দ্র প্রসাদ রাম বলেন, ‘আমার সঙ্গে দীর্ঘদিনের আলাপ ছিল আবদুল রশিদের। উনি খুব ভালো মানুষ ছিলেন। হঠাৎ করে ওনার মৃত্যুতে আমরা শোকাহত।’

তিনি বলেন, ‘এখানে জাতি, ধর্মের কোনো ভেদাভেদ নেই। আমরা তার দেহ নিয়ে কবরস্থানে যাই। আবদুল রশিদের কবরে মাটি দিয়ে ওনার আত্মার শান্তি কামনা করেছি।’

চাঁচলের বিধায়ক আসিফ মেহেবুব বলেন, ‘এভাবেই যেন সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষের মধ্যে সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে। এদিনের এই ঘটনাটিকে আমি শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।’

মাধাইহাট প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইখুল আলম সিদ্দিকি বলেন, ‘হিন্দু-মুসলিম ভাই ভাই- এই বার্তাই দেশজুড়ে পৌঁছে দিতে চাই আমরা।’

এই বিভাগের আরও খবর
সর্বশেষ