ঢাকা মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৪, ২০২০

এবার বাংলাদেশে ভুয়া তথ্য ধরিয়ে দেবে ফেসবুক


|| প্রকাশিত: 4:51 pm , April 19, 2020

পিনিউজ২৪ ডেস্ক: ভুল তথ্য ছড়ানো প্রতিরোধে এবং অনলাইনে প্রাপ্ত খবরের গুণগত মান উন্নয়নে বাংলাদেশে থার্ড পার্টি ফ্যাক্ট-চেকিং প্রোগ্রাম চালু করল ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

ইউএনবি জানায়, ইন্টারন্যাশনাল ফ্যাক্ট চেকিং নেটওয়ার্ক (আইএফসিএন) অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান বিওওএম (বুম) এর সঙ্গে অংশীদার হয়ে কাজ করবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটি।

রবিবার এক প্রেস ব্রিফিংয়ে ফেসবুক জানায়, আজ থেকে বুম বাংলাদেশের ফেসবুক কমিউনিটিতে ছবি ও ভিডিওসহ অন্যান্য স্টোরিগুলোর যথার্থতা পর্যালোচনা করবে এবং সেগুলো নিয়ে একিউরেসি রেটিং প্রদান করবে।

থার্ড পার্টি ফ্যাক্ট-চেকাররা কোনো পোস্টকে অসত্য হিসেবে রেটিং দিলে সেটি নিউজ ফিডে কম দেখাবে বা একেবারে নিচের দিকে চলে যাবে। এতে ওই অসত্য পোস্টটিকে ভাইরাল হওয়া থেকে রোধ করা যাবে।

ভারত এবং মিয়ানমারের মতো অন্যান্য দেশেও বুমের সঙ্গে ফ্যাক্ট চেকিংয়ের কাজ করছে ফেসবুক।

ফেসবুকের এশিয়া-প্রশান্ত অঞ্চলের নিউজ পার্টনারশিপ ডিরেক্টর অঞ্জলি কাপুর বলেন, ‘আমরা জানি যে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা সঠিক তথ্যই পেতে চায়। আমরা বিশ্বাস করি, এই ফ্যাক্ট চেকিং প্রোগ্রামের সাহায্যে আমরা আরও সচেতন জনগোষ্ঠী তৈরি করতে এবং স্থানীয়ভাবে এই প্রোগ্রামটি আরও সম্প্রসারণ করতে পারব।’

বুমের প্রতিষ্ঠাতা-সম্পাদক গোবিন্দ এথিরাজ বলেন, ‘আমাদের ফ্যাক্ট চেকিং অপারেশন বাংলাদেশে প্রসারিত করতে পেরে আনন্দিত। ফ্যাক্ট চেকিং হলো আমাদের বিশেষত্ব এবং আমরা আশাবাদী যে এই প্রচেষ্টার মাধ্যমে বাংলাদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীরা প্রয়োজনীয় ও সঠিক তথ্য পেয়ে যেকোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারবেন এবং অনলাইনে সত্য খবর এবং তথ্য শনাক্ত করতে সক্ষম হবেন।’

কোনো পোস্ট অসত্য হলে থার্ড পার্টি ফ্যাক্ট-চেকারদের দেয়া রেটিং এবং সে সম্পর্কিত আর্টিকেল সেই পোস্টের নিচে সঙ্গে সঙ্গেই দেখায় যাবে। এ ছাড়া ফেসবুক পেজগুলোর অ্যাডমিন বা কোনো সদস্যও যদি কোনো অসত্য তথ্য পোস্ট করার চেষ্টা করে তার নোটিফিকেশনও পৌঁছে যাবে থার্ড পার্টির কাছে।

এর ফলে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা কী ধরনের পোস্ট পড়বে, কোনো তথ্যটি বিশ্বাস করবে আর কী শেয়ার করবে বা করবে না, তা নিজেরাই জেনে-বুঝে সিদ্ধান্ত নিতে পারবে।

এই বিভাগের আরও খবর
সর্বশেষ