ঢাকা বৃহস্পতিবার, জুলাই ৯, ২০২০

‘আগস্ট ১৪’ দেখে স্মৃতিকাতর সোহানা সাবা


|| প্রকাশিত: 4:06 pm , June 19, 2020

পিনিউজ২৪ ডেস্ক: ওয়েব সিরিজ ‘আগস্ট ১৪’ নির্মাণ করে দর্শকদের পাশাপাশি শোবিজের সহকর্মীদের প্রশংসায় ভাসছেন নির্মাতা শিহাব শাহিন। এবার সিরিজটি নিয়ে লিখলেন অভিনেত্রী সোহানা সাবা। এ প্রসঙ্গে তুলে ধরলেন নিজের জীবনের কথা।

শুক্রবার এক ফেইসবুক পোস্টে তিনি এমনও বলেন, “এত সুন্দর ছিমছাম ফ্যামিলিতে ফুল ফ্রিডম পেয়েও বিয়ে করেছি, পালিয়ে ছোট থাকতেই!”

এবার পড়ুন ‘চন্দ্রগ্রহণ’ অভিনেত্রীর পুরো লেখাটি—

“ছোটবেলায় আমি ছিলাম নেশাখোর। হ্যাঁ, ঠিক পড়েছেন… নেশাখোর।

ছোটবেলায় মামনি গল্পের বই পড়ার নেশা ঢুকিয়ে দিয়েছিল… নাচের নেশা..

প্রচন্ড জেদী ছিলাম আমি! যা মনে হতো তাই করেছি… এত সুন্দর জীবন এত ছোটবেলায় এত সুন্দর ক্যারিয়ার আর এত সুন্দর ছিমছাম ফ্যামিলিতে ফুল ফ্রিডম পেয়েও বিয়ে করেছি,পালিয়ে ছোট থাকতেই!

মা-বাবাকে তো টিনএজ পিরিয়ডে সবচেয়ে বড় শত্রু মনে হতো! ভালো কথা বললেই মনে হতো ‘বাজে বকছে’!!

এসব স্মৃতিচারণ করছি কারণ ‘আগস্ট ১৪’ দেখলাম বিঞ্জে!

মনে হলো আমি টিনএজে ফিরে গেছি..মনে হলো ওই বয়সে ফিরে গিয়ে সাবাকে গালে একটা চড় মেরে আসি!

আমি ভাই গোয়েন্দা গল্প পড়ে পড়ে বড় হয়েছি! এখনো মাঝে-মধ্যে দিনে ৭/৮টা ক্রাইম পেট্রল দেখি…

ছোট থেকে ইন্টারন্যাশনাল থ্রিলার পড়ে আর দেখে চোখ পাকানো… আমাকে খুশি করা এত সহজ নয়… তারপর আবার জানা গল্প-(ঘটনার কারণে) পরিচিত মুখ- আমার তো মেকিং খারাপ হলে আর দেখতেই ইচ্ছা করে না কন্টেন্ট!

কিন্তু আমি এক অদ্ভুত জার্নির মধ্যে দিয়ে গেলাম… কী রিয়েলিস্টিক এপ্রোচ অথচ সিনেম্যাটিক প্রেজেন্টেশন!!

শিহাব শাহীন ভাইয়ের সাথে এত বছরেও কাজ করা হয়নি কিন্তু আমি তার ভীষণ ভক্ত! তার সব কাজ দেখেছি… তিনদিন আগে তার ওয়েব সিরিজ দেখে মনে হলো তিনি এই খোলা ময়দানে এসে আরেক ধাপ এগোলেন!!

তাসনুভার কাজ আগে দেখিনি কিন্তু কি চমৎকার সে!!

আর কে না মুগ্ধ করেছে – আমাদের সেলিম ভাই,মিঠু আপু আমাদের শতাব্দী ভাইয়া..আর পরিচিত-নতুন সব মুখ মুগ্ধ করেছে! আমরা আর্টিস্টরা তো অপেক্ষা করি এমন স্ক্রিপ্টে কাজ করতে… আজকাল তো কেউ পাই না ভালো কিছু!

একটা কথা বলতে চাই..খুব সুনিপুণভাবে ডিরেক্টর তুষির ছোটবেলার গল্পটা দেখিয়েছে শতাব্দী ভাইয়ার ক্যারেক্টারের মাধ্যমে… যেখানে বাবা মেয়েকে স্বেচ্ছায় রক্ত দিতে চাচ্ছে অথচ সেই মেয়ে কিনা বড় হয়ে বাবার রক্ত পিপাসু হতে পারলো (!)

জানা গল্প আবার জানলাম অথচ উত্তেজনা ছিলো টানটান!!

হ্যাটস অফ টু ১৪আগস্ট টিম!! থ্রি চিয়ার্স ফর বিঞ্জ!!”