ঢাকা রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০

তীব্র গরমে শরীরের তাপ কমাবেন যেভাবে


|| প্রকাশিত: 5:39 pm , August 20, 2020

পিনিউজ২৪ ডেস্ক: তীব্র গরমে ঘেমে নেয়ে নাকাল মানুষ। শরীরের পানি ঘামের আকারে বেরিয়ে এসে বাষ্পীভূত হলে কমে দেহের তাপমাত্রা। বাতাসে জলীয় বাষ্প বেশি থাকায় এই গরমে অস্বস্তি বাড়ছে বহুগুণ। প্রাকৃতিক উপায়ে শরীরের তাপ কমানো এমন কঠিন কিছু নয়। কিছু পদ্ধতি অনুসরণের মাধ্যমে খুব সহজেই আপনি এই কাজটি করতে পারবেন।

আজকে জেনে নিন প্রাকৃতিক উপায়ে শরীরের তাপ কমানো যাবে এমন কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি-

প্রচুর তরল বা তরল জাতীয় খাবার গ্রহণের মাধ্যমে আপনি ঘরোয়া ভাবে শরীরে তাপ ও পানি শুন্যতা কমাতে পারেন। আরো কিছু প্রতিকারের উপায় আছে যেমন আপনার পা পানিতে ভেজানো বা উষ্ণ স্নান গ্রহণ।

ঢিলাঢালা, হালকা ওজন এবং হালকা রঙের পোশাক পরুন। যদি সম্ভব হয়, পোশাকের বাড়তি অংশ খুলে রাখুন এতে প্রাকৃতিক উপায়ে শরীরের তাপ কমানো যাবে। সিল্ক, শিফন, পাতলা সুতি এবং লিনেনের মত হালকা ওজনের কাপড়গুলি চরম গরমের জন্য উপযুক্ত। সাথে সাদা এবং অন্যান্য হালকা রং পরতে চেষ্টা করুন, যা সূর্যালোক প্রতিফলিত করে তাপকে হ্রাস করতে সাহায্য করতে পারে।

যদি সম্ভব হয়, একটি এয়ার কন্ডিশনাল স্পট খুঁজে নিন। আপনার বাড়িতে যদি না থাকে, সিনেমা থিয়েটার, বা বন্ধুর বাড়িতে যেখানেই হোক এয়ার কন্ডিশনার এর মধ্যে কিছুটা সময় চেষ্টা করুন এতে খুব কম সময়ে শরীরের বাড়তি তাপ কমে আসবে। একটি ফ্যানের সামনে বসেই এটা করা যেতে পারে।

আপনার যদি শুধুমাত্র একটি ফ্যানের ব্যবস্থা করতে পারেন তবে ত্বক ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ভিজিয়ে নিন, এটি আপনার ত্বকে দারুণ চমৎকার একটি ঠাণ্ডা অনুভুতি এনে দিবে। আপনি যখন গোসল করবেন বা স্পঞ্জ করবেন তখন ফ্যানের বাতাসের মধ্যে থাকার চেষ্টা করুন। এতে দ্রুত কাজ হবে।

মৃদু গতিতে, দীর্ঘসময় নিজেকে বাতাস করুন। যদি বৈদ্যুতিক ফ্যান না পান তাহলে হাত পাখা দিয়ে নিজেকে বাতাস করে আপনার তাপমাত্রা কমান। বাতাস করার সময় আপনার ত্বককে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ভিজিয়ে নিন, এটা আরো সহায়ক। একটি পাত্রে ঠাণ্ডা পানি এবং বরফ নিন তারপর তাতে আপনার পা ডোবান। ভাল ফলাফলের জন্য, অন্তত ৬০ মিনিটের জন্য রাখুন। যদি আপনার শুধু কিছুটা ঠাণ্ডা করার প্রয়োজন হয়, যতক্ষণ আপনি চান ততক্ষণ তাদের রাখতে পারেন। পানি গরম হতে শুরু করলে পাত্রে আবারো ঠাণ্ডা পানি এবং বরফ দিন।

বার বার অল্প পরিমাণে ঠাণ্ডা পানি পান করুন। পানি প্রাকৃতিক উপায়ে শরীরের তাপ কমানো এর কাজে সাহায্য করে এবং ঘাম হওয়ার ফলে আপনি যে তরল হারিয়েছেন তা পূরণ করে। একবারে বেশী পানি পানের চেয়ে প্রতি ১৫ মিনিট পর পর ৬ থেকে ৮ আউন্স (১৭৭ থেকে ২৩৭ মিলিগ্রাম) পানি পান করা বেশি কার্যকর।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আবহাওয়া যে ভাবে বদলে যাচ্ছে তাতে দিনে দিনে গরমের অস্বস্তি আরও বাড়বে। গরম-আর্দ্রতা মিলিয়ে অসহ্য অবস্থা থেকে রাতারাতি রেহাই মিলছে না বলে আবহাওয়া অফিসেরও পূর্বাভাস।