ঢাকা মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

করোনা: ‘কমপক্ষে ৪ মাস’ থাকছে অ্যান্টিবডি


|| প্রকাশিত: 3:03 pm , September 2, 2020

পিনিউজ২৪ ডেস্ক: নভেল করোনাভাইরাস থেকে সেরে ওঠা ব্যক্তিদের শরীরে কভিড-১৯ প্রতিরোধী অ্যান্টিবডি চার মাসের আগে কমছে না বলে ‘সুখবর’ দিয়েছে নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিন।

জার্নালটিতে মঙ্গলবার বড় একটি গবেষণার ফলাফল প্রকাশ করেছেন গবেষকেরা। ৩০ হাজার ৫০০ মানুষকে এই গবেষণায় যুক্ত করা হয়।

করোনা প্রতিরোধী অ্যান্টিবডির স্থায়িত্ব জানতে এর আগে যত গবেষণা হয়েছে অধিকাংশ ক্ষেত্রে বলা হয়েছে মাত্র ‘কয়েক মাস’ থাকতে পারে। সেই কয়েক মাস মানে ৬০ দিনও হতে পারে বলে বেশ কয়েকটি গবেষণায় শঙ্কা প্রকাশ করা হয়।

এবার একসঙ্গে অনেক করোনা রোগীকে যুক্ত করে পাওয়া ফলাফল শেষে বিজ্ঞানীরা বলছেন, চার মাসের আগে অ্যান্টিবডির মাত্রা কমছে না বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে। যদি তাই হয়, তাহলে ভ্যাকসিন থেকে ভালো ইমিউনিটি অর্জনের সম্ভাবনা বেড়ে যাবে।

মানুষ যখন কোনো ক্ষতিকর ভাইরাসে সংক্রমিত হয়, তখন শরীরকে রক্ষা করতে রক্তে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়। যাদের হয় না, তাদের জন্যই ভ্যাকসিন দরকার। এই অ্যান্টিবডি যতদিন থাকবে, ততদিন আবার রোগটিতে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কম।

এই গবেষণায় দেখা গেছে, করোনায় সংক্রমিত হওয়ার এক অথবা দুই মাস পর অ্যান্টিবডি দ্বিতীয় ধাপে আবার তৈরি হচ্ছে, যা দীর্ঘমেয়াদি সুরক্ষা দিতে পারে মানুষকে।

গবেষকেরা বলছেন, সবার অ্যান্টিবডির মাত্রা একরকম হচ্ছে না। পুরুষদের তুলনায় নারী এবং ধূমপায়ীদের কম।

এই বিভাগের আরও খবর
সর্বশেষ