ঢাকা সোমবার, নভেম্বর ৩০, ২০২০

বরিশাল দলের থিম সঙ গাইলেন জায়েদ খান


|| প্রকাশিত: 4:00 pm , November 13, 2020

পিনিউজ২৪ ডেস্ক: বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে অংশ নিতে যাওয়া ‘ফরচুন বরিশাল’ দলের থিম সঙয়ে কণ্ঠ দিলেন জায়েদ খান। বৃহস্পতিবার মগবাজারের একটি স্টুডিওতে ‘মুই বরিশাইল্লা’ শিরোনামের গানটিতে প্রতীক হাসানের সঙ্গে গেয়েছেন জায়েদ খান।

এই নায়ক বলেন, ‘এটাই আমার প্রথম গাওয়া গান। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় গান চর্চা করতাম। কিন্তু অভিনয়ে এসে আর গান করা হয়নি। এই গানটি সুর করার পর সংগীত পরিচালক শাহরিয়ার রাফাত বরিশালের অংশটুকু আমাকে গাইতে অনুরোধ করেন। আমিও রাজি হয়ে গেলাম। আশা করছি, গানটি সাড়া ফেলবে।’

রাফাত বলেন, ‘আমার মনে হয়েছে, জায়েদ ভাইয়ের কণ্ঠে গানটা দারুণ মানাবে। কারণ সুর করার পর তাঁকে দিয়ে গাইড ভয়েস দিয়েছিলাম। তখন শুনে মনে হয়েছে, গানটার জন্য এই কণ্ঠটাই সেরা।’

চিত্রনায়ক জায়েদ খান এই মুহূর্তে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ২০০৮ সালে খ্যাতনামা নির্মাতা মহম্মদ হান্‌নানের হাত ধরে চলচ্চিত্রে পদার্পণ করেন। তাঁর পরিচালিত ভালোবাসা ভালোবাসা চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনয় ক্যারিয়ার শুরু হয়।

যেখানে তাঁর সঙ্গে অভিনয় করেন রিয়াজ ও শাবনূর। পরের বছর মনতাজুর রহমান আকবরের ‘কাজের মানুষ’ ও মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘মন ছুঁয়েছে মন’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। ২০১০ সালে মুক্তি পায় তাঁর অভিনীত এফ আই মানিক পরিচালিত ‘আমার স্বপ্ন আমার সংসার’ এবং মনতাজুর রহমান আকবর পরিচালিত ‘মায়ের চোখ’ ও ‘রিকশাওয়ালার ছেলে’।

২০১২ সালে জায়েদ খান শাবনূরের বিপরীতে প্রধান অভিনেতা হিসেবে ‘আত্মগোপন’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন, যা পরিচালনা করেন এম এম সরকার। ২০১৪ সালে তাঁর অভিনীত চলচ্চিত্রগুলো হলো মাশরুর পারভেজ ও আকিব পারভেজের যৌথ পরিচালনার ‘অদৃশ্য শত্রু’, রকিবুল আলম রকিবের ‘প্রেম করবো তোমার সাথে’, আজাদ খানের ‘দাবাং’, মনতাজুর রহমান আকবরের ‘মাই নেম ইজ সিমি’ এবং রাজু চৌধুরীর ‘তোকে ভালোবাসতেই হবে’। ২০১৫ সালে তিনি শাহ্‌ আলম মণ্ডল পরিচালিত ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। একই বছর তিনি রকিবুল আলম রকিব পরিচালিত ‘নগর মাস্তান’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন, যেখানে তাঁর বিপরীতে অভিনয় করেন পরীমণি।

২০১৭ সালে তিনি ‘অন্তরজ্বালা’ নামের চলচ্চিত্র প্রযোজনা করেন, যা তাঁর প্রযোজিত প্রথম চলচ্চিত্র। চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেন মালেক আফসারী, যেখানে তাঁর বিপরীতে অভিনয় করেন পরীমণি।