ঢাকা বুধবার, মার্চ ৩, ২০২১

মিয়ানমারে ইন্টারনেট সচল হলেও সু চির বন্দিদশা বাড়ল


|| প্রকাশিত: 2:13 pm , February 15, 2021

পিনিউজ২৪ ডেস্ক: মিয়ানমারে ধীরে ধীরে চালু হচ্ছে ইন্টারনেট ব্যবস্থা। তবে মুক্তি মিলছে না ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চির। আরও দুই দিন তিনি রিমান্ডে থাকবেন বলে জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।

সোমবার সু চির রিমান্ড শেষ হওয়ার কথা ছিল; কিন্তু তার আইনজীবী খিন মুং জ গণমাধ্যমকে জানান, রাজধানী নেপিডোর একটি আদালতের একজন বিচারক জানিয়েছেন, তার রিমান্ডের মেয়াদ ১৭ তারিখ পর্যন্ত।

রিমান্ড শেষে শুনানির জন্য সোমবার সু চিকে আদালতে হাজির করা হবে বলে এর আগে ধারণা করা হচ্ছিল।

তার আইনজীবী বলেন, ‘আমরা আমাদের পাওয়ার অব অ্যাটর্নির চিঠি দিতে এবং জেলা জজের সঙ্গে আলোচনা করতে এখানে এসেছি। তার বক্তব্য অনুযায়ী, রিমান্ডের মেয়াদ ১৭ তারিখ পর্যন্ত, আজ না।’

মিয়ানমারের নির্বাচনে কারচুপির প্রমাণবিহীন দাবি করে সামরিক বাহিনী সম্প্রতি ক্ষমতা দখল করে এবং দেশে এক বছরের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করে। সু চি-সহ বেসামরিক রাজনৈতিক নেতাদের বন্দী করা হয়।

সামরিক বাহিনীর প্রধান মিন অং লাইং এখন দেশটির সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তি।

অ্যাসিস্ট্যান্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনারস নামের একটি পর্যবেক্ষক গোষ্ঠীর ভাষ্য, মিয়ানমারে অভ্যুত্থানের পর থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় ৪০০ ব্যক্তিকে আটক বা গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের অধিকাংশই রাত্রিকালীন অভিযানে গ্রেপ্তার হন।

গতকাল রবিবার দেশটির সেনাবাহিনী জানায়, সাতজন বিরোধী প্রচারকর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। তারা খ্যাতিমান বলে বিবিসি জানিয়েছে।

ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, সাধারণ লোকজন দল বেঁধে রাতের বেলায় হাঁড়ি-পাতিল, থালাবাসন নিয়ে সড়কে অবস্থান করছেন। নিরাপত্তা বাহিনী গ্রেপ্তার করতে এলে তারা এগুলো পিটিয়ে সবাইকে সতর্ক করছেন।

এই বিভাগের আরও খবর
সর্বশেষ